দিংজান চিসিম নাসা, গুগুলের মত বড় কোম্পানির সাথে প্রকৌশলী হিসেবে যোগ দেওয়ার স্বপ্ন দেখেন

দ্য গারোজ ২৪ নিউজ ডেস্ক,

দিংজান নাসা, গুগলের মত বড় কোম্পানির সাথে  যোগ দিয়ে গবেষণা কাজ করার স্বপ্ন দেখেন! আজ ফেইসবুকে দ্য গারোজ ২৪ এর সম্পাদক বাবুল ডি’ নকরেক এর সাথে কথা বলার সময় তিনি তাঁর স্বপ্নের কথা জানান।



দিংজান বলেন, বড় স্বপ্ন দেখি! স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে গেলে আমাকে অনেক শ্রম, ঘাম, সময় দিতে হবে, প্রচুর পড়াশোনা করতে হবে, অনেক শিখতে হবে, জানি। আমি চেষ্টার কোন ত্রুটি রাখব না। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, প্রার্থনা করবেন।

দিংজানের চোখ গুগল এবং নাসা’র মত পৃথিবীর বড় বড় কোম্পানির দিকে !

সম্পাদকের সাথে কথা বলার সময় হঠাৎ করেই দিংজান তাঁর শৈশবে ফিরে যান এবং সম্পাদককে অবাক করে দিয়ে বলেন, “দাদা, আই ক্যান স্টিল রিমেম্বার ইউর ম্যাজিক ট্রিক্স!”



উল্লেখ্য, দিংজানের শৈশবে দ্য গারোজ ২৪ এর সম্পাদক কয়েক মাসের জন্য দিংজানদের ঢাকা মোহাম্মদপুরের  বাসায় ছিলেন। তিনি তখন ঢাকার একটি কলেজে মাত্র যোগ দিয়েছেন এবং ঢাকায় ভালো বাসা খুঁজছিলেন! ছোটদের সাথে আডায় মাঝে মাঝে ম্যাজিক দেখাতেন বাবুল ডি’ নকরেক এবং কীভাবে ‘ট্রিক্স’ করে ম্যাজিক হয় তা বাচ্চাদের বুঝিয়ে দিতেন। ম্যাজিক যাদু নয়, ট্রিক্স এবং বুদ্ধির খেলা।


গত ১৫ ফেব্রুয়ারি, দিংজান চিসিম উচ্চ শিক্ষার জন্য মালয়েশিয়ায় পাড়ি দিয়েছেন। তিনি Curtin University তে ইতোঃমধ্যে পৌঁছেছেন এবং সেখানে  তাঁর জন্য নির্ধারিত হলে অবস্থান করছেন।

দিংজানের সাথে তাঁর আজং সুমনা চিসিমও মালয়েশিয়া গেছেন বলে জানা গেছে। সুমনা চিসিম একজন গবেষক এবং লেখক। তাঁর লেখা বই একুশের বই মেলায় ঝড় তুলেছে বলে জানা গেছে। পাওয়া যাচ্ছে থকবিরিম প্রকাশনীর স্টলে।

শিক্ষক বাবা রঞ্জিত রুগা এবং উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী মা তুলি চিসিমের সাথে অসম্ভব মেধাবী, স্বপ্নবাজ তরুণ দিংজান চিসিম

দিংজানের অরিয়েন্টেশান ক্লাশ হবে আগামীকাল এবং প্রথম ক্লাশ শুরু হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে। তিনি জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, তাঁর পরিবেশ সব কিছু তাঁর অসম্ভব ভালোলাগছে।



দিংজান ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (সম্মান) নিয়ে পড়াশোনা করবেন। তাঁর কোর্স চার বছরের। কোর্স শেষ করে দিংজান উচ্চতর পড়াশোনা এবং গবেষণার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চান, স্বপ্ন দেখেন বিশ্ব সেরা প্রকৌশলী হওয়ার।

দিংজান স্কুল শিক্ষক, সমাজ সেবক রঞ্জিত রুগা এবং তুলি চিসিমের এক মাত্র ছেলে। তুলি চিসিম পেশায় একজন শিল্প উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী। দিংজান গারোদের কিংবদন্তী হরিপদ রিছিলের (পদ মোড়ল) নাতি।

দিংজানের বাবা-মা’কে তাঁদের ফোনে বার বার ফোন করেও পাওয়া যায় নি। তাঁদের বাংলা লিঙ্ক ফোন টি বন্ধ পাওয়া যায়।

স্বর্গীয় হরিপদ রিছিলের পরিবার থেকে এ পর্যন্ত ৪ জন দেশের বাইরে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছেন। সাদিয়া চিসিম, অদ্রি চিসিম, অংশু চিসিম এবং সর্বশেষ দিংজান চিসিম দেশের বাইরে গেলেন উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য। সাদিয়া চিসিম পড়াশোনা শেষ করেছেন, বাকী ৩ জন অধ্যয়নরত। অনেকেই তাঁদের উচ্চ শিক্ষার জন্য বাইরে যাওয়াকে ইতিবাচক এবং গারোদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস বলে মনে করছেন।



Sharing is caring! Please share with friends & family if you find this website useful

1 thought on “দিংজান চিসিম নাসা, গুগুলের মত বড় কোম্পানির সাথে প্রকৌশলী হিসেবে যোগ দেওয়ার স্বপ্ন দেখেন”

  1. শুভ কামনা দিংজান এর জন্য। তার স্বপ্ন সফল হোক এই কামনা রইলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *